Skip to content

সবং তেমাথানিতে সাধারণ মানুষের কান্না! ভেঙে দেওয়া হয়েছে দোকানপাট ক্ষতিপূরণে ব্যর্থ প্রশাসক

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on telegram

সবং তেমাথানিতে সাধারণ মানুষের কান্না! ভেঙে দেওয়া হয়েছে দোকানপাট ক্ষতিপূরণে ব্যর্থ প্রশাসক

পূনর্বাসন নিয়ে দ্বন্দ্ব তৃণমূলের অন্দরে

সকালে শনির দশা ভক্তি হল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা সবং ব্লকের তেমাথানি শ্মশান মোড় এলাকার সমস্ত দোকানদারদের। চারিদিক তাকালেই দেখা যাচ্ছে বাজার পরিণত হয়েছে শ্মশানে। চা-বিস্কুটের দোকান থেকে শুরু করে কিডনাসক রাসায়নিক সারের দোকান ছবি আজ পরিণত হয়েছে শ্মশানে। দীর্ঘদিন আগে নোটিশ দেওয়া হয়েছিল দোকানগুলি অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার রাস্তা বড় হওয়ার কারণে এইগুলি ভেঙে ফেলা হয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে।সবং তেমাথানিতে সাধারণ মানুষের কান্না! ভেঙে দেওয়া হয়েছে দোকানপাট ক্ষতিপূরণে ব্যর্থ প্রশাসক দোকানদারদের অভিযোগ পুনর্বাসন দেওয়ার কথা থাকলেও তা কোনোভাবেই এখন মানতে চাইছে না প্রশাসনের কোন ব্যাক্তি। শনিবার দিন সকালে হঠাৎই কাউকে না জানিয়ে বুলডোজার নিয়ে এসে দোকান ঘর ভরিয়ে দিয়ে চলে যায় প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা। ৩০০ দোকান গুঁড়িয়ে দেয়া হয় বলে অভিযোগ করেন ব্যবসায়ী সমিতির কর্মকর্তারা। সেই সাথে সমস্ত দোকানের জিনিসপত্র হাহাকারের মত লুট করে নিয়েছে এলাকার সকল মানুষজন। আর তাতেই মাথায় হাত পড়েছে এই দোকানদার গুলির মালিকদের। ধ্বংসস্তূপের তলায় তলিয়ে গেল কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি। দোকানদারদের অভিযোগ আমাদের কি জিনিসপত্র ছড়ানোর মতো সুযোগটুকু দেওয়া হয়নি প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

 

শান্তনু পান, অবিরাম, পশ্চিম মেদিনীপুর