আগুনের কবলে খড়গপুরের ভান্ডারী শোরুম

আগুনের কবলে খড়গপুরের ভান্ডারী শোরুম

আগুনের কবলে খড়গপুরের ভান্ডারী শোরুম! দমকলের তৎপরতায় প্রদানে রক্ষা পেলো আবাসনের বাসিন্দারা

শান্তনু পান, পশ্চিম মেদিনীপুর:- সোমবার বিকেলে ভয়াবহ আগুনের লেলিহান শিখা থেকে রক্ষা পেল খড়গপুর শহরের গোল্ডেন বুলবুলচটি এলাকার ভান্ডার এর শোরুম। সঠিক সময়ে এসে পৌঁছালে আবাসিক এর সমস্ত বাসিন্দারা প্রাণে রক্ষা করতেন না এমনটাই মত বাসিন্দাদের। ঝুমকোলতা পরীক্ষা দিল এই আবাসনের ভানডারি শোরুম টিও। আগুনের কবলে খড়গপুরের ভান্ডারী শোরুমশোরুম এর কয়েক কোটি টাকার সম্পত্তি যেমন রক্ষা হয়েছে অপর দিকে রক্ষ্যা হয়েছে কয়েকশ সাধারণ মানুষের প্রাণও। শোরুমের একটি বিভাগে পুরানো গাড়ির কাজ করা হয়। দমকলের আধিকারিকদের অনুমান মেরামতির ওই বিভাগ থেকে কোনভাবে গিয়ে সমস্ত স্তরের আগুন জ্বলে ছড়িয়ে পড়ে। পুরাতন গাড়ির পাশাপাশি নতুন গাড়ি ও প্রচুর পরিমাণে স্টক ছিল শোরুম টিতে। ভান্ডারি অটোমোবাইল শোরুমের এক্সিকিউটিভ এর দাবি সঠিক সময় না আসলে কয়েক কোটি টাকার সম্পত্তি লোকসান হয়ে যেতে পারত।

বাক্কা দুমুরিয়াতে ফার্মে ভিশন আগুন লাগাই জ্বলে গেল 33 টি ছাগল

বাক্কা দুমুরিয়াতে ফার্মে ভিশন আগুন লাগাই জ্বলে গেল 33 টি ছাগল।

গোয়ালপুকুর 2 নম্বর ব্লকের সাহাপুর টু গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত বাক্কা ডুমুরিয়া দক্ষিণ তোলা গ্রামে একটি ফার্ম এ আগুন লাগাই প্রায় 33 টিরও বেশি ছাগল জ্বলে যায়।

বাক্কা দুমুরিয়াতে ফার্মে ভিশন আগুন লাগাই জ্বলে গেল 33 টি ছাগল।
বাক্কা দুমুরিয়াতে ফার্মে ভিশন আগুন লাগাই জ্বলে গেল 33 টি ছাগল

ওই ফার্মের মালিক আনজার আলম বাইরে কাজ করতেন লকডাউন এর কারণে বাড়িতে বেকার হয়ে বসে ছিলেন তাই তিনি একটি ফার্ম খুলেন। সদ্য নতুন ওই ফার্মটি তিনি খুলেছিলেন। গ্রামবাসীদের মুখ থেকে জানা যায় 27 তারিখ রাতে আনজার আলম বিয়ের বর যাত্রী তে চলে যায় এবং কেউ তাকে ফোন করে বলে তার ফার্মে

 

আগুন লেগেছে। গ্রামবাসীরা যতক্ষণে ওই আগুন নিভিয়ে ছিল ততক্ষণে সব শেষ হয়ে গেছিল। প্রায় 33 টি ছাগল জ্বলে গিয়েছে। তার গ্রামবাসীরা প্রশাসনের কাছে অনুগ্রহ করেছেন যে আনজার আলম কে কিছু সরকারি সাহায্য দেওয়া হোক।

চিনপাই গ্রামের পিকনিক স্পটের কাছে বনভূমির মধ্যে আগুন

বনভূমির মধ্যে আগুন

সিউড়ি চিনপাই গ্রামের কাছে নীল নির্জন পিকনিক স্পটের কিছুদুর গিয়ে যে বনভূমি রয়েছে সেই সব বনভূমির মধ্যে কে বা কাহারা ওই বনভূমির মধ্যে আগুন ধরিয়ে দেয। আস্তে আস্তে অন্যান্য গাছগুলির মধ্যেও ছড়িয়ে পড়ছে আগুন। এভাবে যদি চলতে থাকে এই বনভূমি আগুন তাহলে পরে হয়তো কিছুদিনের মধ্যেই জঙ্গল পুরোপুরি পরিষ্কার হয়ে যাবে।

বনভূমির মধ্যে আগুন
বনভূমির মধ্যে আগুন

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এই জঙ্গলে কাঠ এবং পাতা তুলে নিয়ে গিয়ে অনেকের অন্নের যোগান হয়। এই প্রশ্নটা রেখেছে যারা রীতিমত এই বনভূমির ওপর ভরসা করে দিনযাপন করছে তারা। পুলিশ যতটা পারে চেষ্টা চালাচ্ছে আগুন নেভানোর। কিন্তু কে বা কারা কি উদ্দেশ্যে এই ধরনের আগুন ধরল কিভাবে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। অন্যদিকে বেশকিছু মানুষ বলেছে যে আজকে হাওয়া প্রচুর থাকার কারণে গাছে গাছে ঘর্ষণ লেগেছে তার ফলে হয়তো আগুনের
লেগে থাকতে পারে এখনো পর্যন্ত সদাইপুর থানার পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি ।

রাতের অন্ধকারে আগুনে পুড়ে ছাই পর্যটক এর গাড়ি

রাতের অন্ধকারে আগুনে পুড়ে ছাই পর্যটক এর গাড়ি
“রাতের অন্ধকারে আগুনে পুড়ে ছাই পর্যটক এর গাড়ি,,- নিরাপত্তাহীনতায় পর্যটকেরা তদন্তে– পুলিশ

ডিসেম্বর শুরু থেকেই সৈকত শহর দিঘাতে ভিড় জমিয়েছে বহু পর্যটক , বড়দিনের ছুটি কাটাতেও উপচে পড়া ভিড় সৈকত প্রান্তরে। ছোট ঘটনা হলেও রাতের অন্ধকারে দাঁড়িয়ে থাকা গাড়ি হঠাৎ দাও দাও করে পুড়ে যাওয়ার ঘটনা দুশ্চিন্তা বাড়িয়েছে পর্যটকদের

রাতের অন্ধকারে আগুনে পুড়ে ছাই পর্যটক এর গাড়ি
রাতের অন্ধকারে আগুনে পুড়ে ছাই পর্যটক এর গাড়ি

শীতের রাতে এমন ঘটনাকে অস্বাভাবিকভাবেই নিচ্ছেন পর্যটকরা । যদিও গাড়িতে আগুন লাগার নির্দিষ্ট কারণের তদন্ত শুরু করেছে দীঘা থানার পুলিশ । খতিয়ে দেখা হচ্ছে সিসিটিভি ফুটেজও।গাড়ি পার্কিংএর নির্দিষ্ট জায়গা না থাকায় নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তুলছেন পর্যটকেরা । সবমিলিয়ে দীঘা জুড়ে রাতের অন্ধকারে আগুন পুড়ে যাওয়া গাড়ির ঘটনা, পর্যটকদের ছুটির আনন্দে ব্যাপকভাবে চাঞ্চল্য সৃষ্টি করছে। প্রশ্ন উঠছে– রাত্রিকালীন পর্যটক নিরাপত্তার নিয়ে ও।

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং এ পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু ১

পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু ১

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং এ পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু ১

শনিবার বেলা প্রায় ৯ টার সময় পথ দুর্ঘটনাটি ঘটে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং থানার দশগ্রাম নতুন পুকুর এলাকায় তেমাথানি পটাসপুর রাজ্য সড়কের মাঝে।

পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু ১
পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু ১

মৃত ব্যক্তির নাম বৈরাম সিং, তার বাড়ি পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বেলদা থানা এলাকায়। ওই ব্যক্তি যখন সাইকেল চালিয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন সেই সময় ওই এলাকায় রাস্তা সম্প্রসারণের কাজে যুক্ত একটি গাড়ি দ্রুত গতিতে এসে তাকে ধাক্কা মারলে তিনি সাইকেল সমেত রাস্তার উপর পড়ে যায়।ঘটনা স্থলেই তার মৃত্যু হয়। গাড়ি টিকে ফেলে রেখে গাড়িটির চালক ঘটনা স্থল থেকে পালিয়ে যায়। যার ফলে ওই এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে সবং থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সেই সঙ্গে মৃত দেহটি উদ্ধার করে খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালের মর্গে ময়না তদন্তের জন্য পাঠায় ও ওই ঘটনার তদন্ত শুরু করে।

Breaking News : দিঘা যাওয়ার পথে ভয়াবহ দুর্ঘটনা! উল্টে যায় যাত্রীবাহী বাস

দিঘা যাওয়ার পথে ভয়াবহ দুর্ঘটনা

Braking News : – দিঘা যাওয়ার পথে ভয়াবহ দুর্ঘটনা! উল্টে যায় যাত্রীবাহী বাস ঘটনাস্থলে পুলিশদিঘা যাওয়ার পথে ভয়াবহ দুর্ঘটনা

শনিবার সকালে কলকাতা থেকে একটি পর্যটক বোঝাই যাত্রীবাহী বাস (Breaking News)দিঘার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছিল। এমন সময় হঠাৎ মারিশদার কাছে সামনে একটি মারুতি চলে আসায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি পাশে থাকা একটি নয়ানজুলিতে পড়ে যায়। ঘটনায় বেশ কয়েকজন গুরুতরভাবে আহত হয়। তাদের কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বর্তমানে তাদের চিকিৎসা চলছে।