Skip to content

শান্তিনিকেতনে গ্রেপ্তার চার বাংলাদেশী দুস্কৃতীঃ ব্যাপক চাঞ্চল্য রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক মহলে

শান্তিনিকেতনে গ্রেপ্তার চার বাংলাদেশী দুস্কৃতীঃ ব্যাপক চাঞ্চল্য রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক মহলে

সোমবার শান্তিনিকেতনের তালতোড় গ্রামের ধারে একটি বাড়ী থেকে চার বাংলাদেশী দুস্কৃতীকে গ্রেপ্তার করলো বীরভূম জেলা পুলিশ। তাদের সঙ্গে স্হানীয় দুই জনও আছে। বড়সড় কোন দুর্ঘটনা ঘটার আগেই জেলা পুলিশের তৎপড়তায় বড়সড় সাফল্য মেলে। শান্তিনিকেতনের তালতোর গ্রামে একটি ভাড়া বাড়ীতে আশ্রয় নেয় এই দুষ্কৃতীরা। পুলিশ সূত্রে খবর, এই দুষ্কৃতীরা সুপারি কিলার হিসেবে এসেছিল। পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে এদের গ্রেফতার করে। গ্রেপ্তারের পর দুস্কৃতীদের শান্তিনিকেতন থানায় নিয়ে আসা হয়। ধৃতদের কাছ থেকে দুটি ওয়ান শাটার, দুটি সেভেন এম এম পিস্তল এবং একটি নাইন এমএম পিস্তল সহ কার্তুজ উদ্ধার হয়েছে। জানা গেছে, মেদনীপুরের জেলে বন্দী থাকা একজন তাদের সুপারি দিয়ে পাঠায়। বীরভূমের বড় মাপের এক রাজনৈতিক নেতাকে খুন করার পরিকল্পনা করা হচ্ছিল। এমনটাই প্রাথমিক ভাবে জানা যাচ্ছে। বাংলাদেশ থেকে ঐ দুস্কৃতীরা কি ভাবে এলো, তাদের সঙ্গে কোন জঙ্গি গোষ্ঠীর যোগাযোগ রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। জেলা পুলিশ ঘটনার কথা রাজ্য পুলিশের তদন্তকারী সংস্হা এসটিএফকে জানায়। এসটিএফ আজই তদন্তভার হাতে নেবে। তারা কি উদ্দেশ্যে, কেন কি ভাবে এখানে এলো তা খতিয়ে দেখা হবে। শান্তিনিকেতনের মতো জায়গায় বাংলাদেশের দুস্কৃতী গ্রেপ্তার হবার ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে জেলার রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক মহলে।

মহিউদ্দীন আহমেদ, বোলপুর

বড় খবর