Skip to content

আলোর দিশারী ছাত্র সংগঠনের বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠান রাজারহাটে

আলোর দিশারী ছাত্র সংগঠনের বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠান রাজারহাটে

সামিম আকতার,রাজারহাটঃ
উঃ ২৪ পরগনা জেলার বিধাননগর কমিশনারেটের রাজারহাটের একটি অরাজনৈতিক ছাত্র সংগঠন আলোর দিশারীর বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় রাজারহাট চৌমাথায়।
এদিন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেঙ্গল অলিম্পিক এসোসিয়েশনের সচিব মাননীয় শ্রী বাবুন ব্যানার্জি মহাশয়, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের বন ও ভূমি স্থায়ী সমিতির কর্মাধ্যক্ষ তথা পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল মাদ্রাসা টিচার্স এসোসিয়েশনের রাজ্য সভাপতি মাননীয় এ কে এম ফারহাদ সাহেব,এছাড়া ও উপস্থিত ছিলেন রাজারহাট পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তথা রাজারহাট ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি মাননীয় শ্রী প্রবীর কর মহাশয়,বিধাননগরের ডেপুটি মেয়র তাপস চ্যাটার্জি মহাশয়, বিধান নগর কর্পোরেশনে’র ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তথা ১ নং বোরো চেয়ারম্যান মাননীয় জনাব শাহনাওয়াজ হোসেন(ডাম্পি) মন্ডল,
জেলা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি মাননীয় দেবরাজ চক্রবর্তী মহাশয়, রাজারহাট ব্লক তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি মাননীয় আফতাব উদ্দিন মহাশয়,সিরাত সোস্যাল ওয়েলফেয়ার অ্যান্ড এডুকেশনার ট্রাস্টের সম্পাদক আবু সিদ্দিক খান সাহেব,কোলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবী মোফাক্কেরুল ইসলাম, আলোর দিশারীর সম্পাদক সেখ রাহানাতুল্লাহ,সমাজকর্মী রাকিবুল ইসলাম সহ বিশিষ্টজনেরা।


এদিন অনুষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে প্রথম পর্বের অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। এদিন অন্যান্য কর্মসূচীর মধ্যে ছিল পথ শিশুদের শিক্ষা সামগ্রী ও বস্ত্র উপহার,বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের বস্ত্র উপহার,বৃক্ষরোপণ,করোনা যোদ্ধাদের সন্মান জ্ঞাপন,মাক্স ও স্যানিটাইজার বিতরণ সহ বিভিন্ন কর্মসূচি। অনুষ্ঠানের অন্তিম লগ্নে বৃক্ষরোপণ করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বেঙ্গল অলিম্পিক এসোসিয়েশনের সচিব বাবুন ব্যানার্জি মহাশয় এবং তিনি আমাদের কে জানান ১ বছর ধরে আলোর দিশারী বিভিন্ন কর্মকাণ্ড কে সোস্যাল নেটওয়ার্ক কে দেখে করুনা নয়,ভালোবাসার টানে এগিয়ে এসেছেন তিনি,আগামীতে তিনি সর্বদা পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পর পরই এ কে এম ফারহাদ সাহেব জানানপশ্চিমবঙ্গের মানবিক মুখ্যমন্ত্রী শ্রীমতী মমতা ব্যানার্জি মহাশয়া জন্মগ্রহণ থেকে মৃত্যুবরন এই সময়কালিন বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্যেদিয়ে যে ভাবে বাংলার মানুষের পরিষেবা দিয়ে চলেছেন তা অত্যন্ত গর্বের। যেখানে কোনো ধর্মের ভেদাভেদ না সকলে মিলে সেই সমস্ত প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হই।তাঁরই দেখানো পথ ধরে কলকাতার মহানাগরিক মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ও খাদ্য মন্ত্রী জোতির্প্রিয় মল্লিক দিন রাত পরিশ্রম করে শিশু থেকে ছাত্র ও বৃদ্ধদের কে পরিষেবা দিয়ে চলেছেন। আজ রাজারহাটে এই আলোর দিশারী ছাত্র সংগঠন কলকাতার ফুটপাতের শিশুদের কে শিক্ষার মূল শ্রোতে ফিরিয়ে আনতে তারা যে দীর্ঘ পরিশ্রম করে যাচ্ছে একদিন নিশ্চয়ই সফল আনবেই এবং সর্ব সময়ে যেকোনো ভাবে সহযোগিতার প্রয়োজনে পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন।
এদিনের অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষক সেখ রাহানাতুল্লাহ মহাশয়ের তত্ত্বাবধানে সল্টলেক থেকে আলোর দিশারী পরিবারের শিশুদের আনার ব্যবস্থা করেন, সেই সমস্ত শিশুরা বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান মনোরঞ্জনিত করে তোলে এবং অনুষ্ঠানের অন্তিম লগ্নে সিরাতের পক্ষ থেকে সেই সকল শিশুদের কে একটি করে কবিতা ও গল্পের বই তুলেদেন শিক্ষক আবু সিদ্দিক খান সাহেব। এদিনের উপস্থিতি মানুষের সংখ্যা ছিল লক্ষ্যণীয় । রাজারহাট থেকে সামিম আখতারের রিপোর্ট ডে বার্তা নিউজ।

বড় খবর